1. admin@dainikhabigonjeralo.com : admin :
বৃহস্পতিবার, ১৩ মে ২০২১, ০৭:২৭ অপরাহ্ন
ব্রেকিং নিউজ :
ঈদ-উল ফিতরের শুভেচ্ছা জানিয়েছেন এ আর হারুন অর রশিদ বাঘ বিশিষ্ট রাজনীতিবিদ ও সমাজ সেবক স্বাস্থ্যবিধি মেনে ঈদ উদযাপন করতে আহবান জানান আবুল হাসেম রতন ইসরায়েলি বর্বরতা কদরের রাতে জেরুজালেমে ঈদের শুভেচ্ছা জানিয়েছেন মানবতার ফেরিওয়ালা মোহাম্মদ দিলু তালুকদার বীরগঞ্জে বজ্রপাতে এক মহিলার মৃত্যু টেক্সাসে লোকালয়ে বাঘ- গ্রেফতার সন্দেহভাজন মালিক সাংবাদিক শাহ মাইনুল হাসান খোকনের পক্ষ থেকে ঈদের শুভেচ্ছা জাগ্রত তরুণ সোসাইটি মাধবপুর সামাজিক সংগঠনের পক্ষ থেকে ঈদের শুভেচ্ছা গলাচিপায় গরু চুরির অভিযোগে যুবককে পিটিয়ে হত্যা সম্প্রতি চীনা রাষ্ট্রদূতের বক্তব্য কূটনৈতিক শিষ্টাচার পরিপন্থী -মনোরঞ্জন শীল গোপাল এমপি

মাধবপুরে বিকাশ একাউন্ট আপডেট এর নামে প্রতারণায় শিকার শেখ বাহার

রিপোর্টারের নাম
  • প্রকাশিত : বুধবার, ৫ মে, ২০২১
  • ৫২ বার পড়া হয়েছে

মোঃ মোবাশ্বির হোসেন হবিগঞ্জ মাধবপুর প্রতিনিধিঃ

হবিগঞ্জের মাধবপুরে বিকাশ একাউন্ট ব্যালেন্স চেক ও আপডেট দেওয়ার নামে প্রতারণায় শিকার এক ক্ষুদ্র ব্যবসায়ী ।

গত কয়েক দিন আগে হবিগঞ্জের মাধবপুর উপজেলার ৯নং নোয়াপাড়া ইউনিয়নের শাহপুর নতুন বাজারের একটি বিকাশ ও ভেরাইটিজ ষ্টোর দোকানের মালিকের অনুপস্তিতে দোকানের কর্মচারীর কাছ থেকে বিকাশ এজেন্টের মোবাইল থেকে নগত ২০,০০০ হাজার টাকা বি টু বি করিয়া নিয়ে যায় এক বিকাশ কর্মী।

ভুক্ত ভোগী উপজেলা শাহপুর নতুন বাজার মায়ের দোয়া বাহার ভেরাইটিজ স্টোর এর প্রোঃ অত্র ইউনিয়ন যুবলীগের যুগ্ম আহ্বায়ক শেখ মোহাম্মদ বাহার ।

এই বিষয়ে জানতে চাইলে ভুক্ত ভোগী বাহার বলেন- আমি একজন ব্যবসায়ী স্হানীয় শাহপুর নতুন বাজারে বাহার স্টোর ও বিকাশ, ফ্লেক্সিলোড এন্ড ভেরাইটিজ স্টোর দোকান আমার ব্যবসা প্রতিষ্টানে। মাঠকর্মী মোঃ আতিক মিয়া উপজেলা ইউনিয়ন নোয়াপাড়া এলাকাধীন বিকাশ মাঠকর্মী হিসেবে প্রত্যক ব্যবসায়ীদের মোবাইলে বিকাশ লোড দিয়ে নগত টাকা উত্তোলন করে থাকেন।

বরাবরের মতো আমার দোকানে কর্মচারী মোঃ আবু ছালামের নিকট হইতে আমার বিকাশ এজেন্ট নম্বর – ০১৭৭৫ ৫৬৩৩২১ এর ব্যালেন্স চেক করার কথা বলে আমার বিকাশ এজেন্ট ফোনটি তাহার হাতে নেয়, তাহার ব্যবহৃত বি টু বি নম্বর ০১৯৭৯ – ২৭১৫৬৩ এ আমার বিকাশ এজেন্ট নম্বর হইতে ২০,০০০ হাজার টাকা বি টু বি করার শেষে নেটওয়ার্কের সমস্যা বলিয়া চলিয়া যায়।

পরবর্তী সময়ে বিকাল বেলায় দোকানে এসে আমার বিকাশ এজেন্ট নম্বর এর ব্যালেন্স ও ইনবক্স
এসএমএস চেক করে দেখতে পাই। আমার বিকাশ এজেন্টের নম্বর ০১৭৭৫-৫৬৩৩২১ হইতে আতিক মিয়া বিকাশ বি টু বি নম্বর ০১৯৭৯-২৭১৫৬৩ নম্বর এ ২০,০০০ / হাজার টাকা নিয়ে চলে যায়।

আমার অনুপতিতে আমার বিনা অনুমতিতে আমার বিকাশ এজেন্ট নম্বর হইতে উত্ত টাকা নেওয়ার কারণ জিজ্ঞাসা করিলে’আতিক মিয়া ভুল শিকার বসত্ত হয়েছে শিকার করে আমার টাকা ফেরত দিবে বলে আশ্বাস দেন ,কয়েকদিন অপেক্ষা করলাম টাকাতো ফেরত দেয়নাই বরং আমাকে প্রাণ নাশের হুমকি দেন এবং আমার বিকাশ এজেন্ট নম্বর লক করে দেন। বর্তমানে আমার বিকাশ ব্যবসা অফ।

বিকাশ মাঠ কর্মী মোঃ আতিক মিয়া আপনার সাথে এমন গঠনা করেছেন এই বিষয়ে বিকাশ এজেন্ট মালিকের সাথে যোগাযোগ হয়েছে কিনা এমন প্রশ্নের জবাবে বাহার বলেন- আমার ব্যবসায়িক বিকাশ এজেন্ট নম্বর হইতে টাকা আত্মসাৎ ও লক করে দেওয়ার বিষয়টি সাক্ষীসহ মাধবপুর নুপুর টেলিকম এন্ড বিকাশ কাস্টমার এর প্রোঃ রাজিব বাবুর সাথে আলোচনা ও পরামর্শ করেই আমার টাকা ফেরত পাওয়ার আশায় আমি থানায় অভিযোগ করেছি বলে জানা যায়, শেখ মোহাম্মদ বাহার বলেন আমি এর উপযুক্ত বিচার চাই ।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরো সংবাদ পড়ুন
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত